পাখিদের বেঁচে থাকা আজ মারাত্মক সংকটের মধ্যে পড়েছে

0
212

আবুল হোসেন মজুমদার : এ ডাল থেকে ও ডাল। তিড়িং-বিড়িং করে দ্রুত ছুটে যাওয়া। একটু বিশ্রাম নেই। সেই সাথে কিছুক্ষণ পর পর কণ্ঠনালি থেকে উঠে আসা বিরামহীন ডাক। ডাকে ডাকে মুখর প্রকৃতির চারদিক। ছোটপাখিরা এভাবেই অস্তির। একটুও নেই স্থিরতা তাদের মাঝে। মাত্র কয়েকটি পোকার সন্ধানে সারাদিন ধরে কেবল ছুটাছুটি আর দৌড়ঝাপ। এক সময় তারা ব্যাপকভাবে থাকলেও আজ সংখ্যায় কমে গেছে অনেক। পাহাড়, বন, ঝোপঝাড় এ সময় উজার হওয়ার ফলে এই পরিবারের পাখিদের বেঁচে থাকা আজ মারাত্মক সংকটের মধ্যে পড়েছে। চা বাগান বা ঝোপঝাড়ের পাখিরা আজ ভালো নেই।বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রখ্যাত পাখি গবেষক ইনাম আল হক বাংলানিউজকে বলেন, প্রিনারা সব ঝোপের পাখি। বাংলাদেশে সব ঝোপঝাড় শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু কৃত্রিম ঝোপ হলো চা-গাছ। চা বাগানের চা-গাছগুলো কিন্তু প্রকৃতিক ঝোপ নয়। যেহেতু এটা কৃত্রিমঝোপ তাই ঝোপের পাখিরাও এখানে আছে। আসলে আমরা চা বাগানে অনেক প্রিনাই হয়তো দেখতে পেতাম, কিন্তু এখন পাবো না, এর কারণ ঝোপগুলোতে পোকা খুবই কম। একটি ফসল হিসেবে চা গাছ লাগিয়েছি, তাই আমরা চাইনা এর পাতায় পাতায় পোকা হোক। প্রতিদিন আমরা চা গাছে কীটনাশক ছিটাই। সেই জন্যে প্রিনা পরিবারের পাখিরা কম।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here