আর্জেন্টিনার হয়ে আর নাও খেলতে পারেন মেসি!

২০১৬ কোপা আমেরিকার ফাইনালে চিলির কাছে টাইব্রেকারে হারের পর এই প্রচারণাতেই তো নেমেছিল বলতে গেলে পুরো আর্জেন্টিনা। ওই হারের পরই জাতীয় দলের জার্সিটাকে বিদায় বলে দিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। মেসি আর থাকবেন না, মানতে নারাজ আর্জেন্টাইনরা তখন নেমেছিল তাঁর পানে অনুরোধের ডালি সাজিয়ে। কত খোলা চিঠি, শত অনুরোধ আর অনেক মিছিলের পর দুই মাস বাদেই ফিরে এসেছিলেন মেসি।

আবার সেই ছবিটাই হয়তো দেখা যাবে। মেসি এবার কোনো ঘোষণা দেননি, কিন্তু আবার কখনো আকাশি নীল-সাদা জার্সিটা গায়ে জড়াবেন, সেটিও সংশয়ে! আর্জেন্টিনার দায়িত্বে অস্থায়ী নিয়োগ পাওয়া কোচ লিওনেল স্কালোনি নিজেই এই শঙ্কার কথা যখন বলছেন, বিষয়টি ভাবায় বটে।

২০১৬-তে যা ছিল কোপা আমেরিকা, মেসির জন্য এবার তা বিশ্বকাপ। রাশিয়াই ৩১ বছর বয়সী মেসির শেষ বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে, তা তো ধরেই নিয়েছেন অনেকে। দুর্বল একটা দলে তিনি ছিলেন বলেই শিরোপার প্রায় অবাস্তব একটা স্বপ্নও দেখেছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু বিশ্বকাপটা হয়ে রইল দুঃস্বপ্ন। হাঁচড়ে-পাঁচড়ে গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে শেষ ষোলোতে ফ্রান্সের হাতে সে স্বপ্ন খুন।

কিন্তু সেবারের মতো এবার আর ঝটপট সিদ্ধান্ত নেননি মেসি। কোনো ঘোষণা দেননি। ঘোষণা কী, কিছুই বলেননি। পুরো স্পিকটি নট। কিন্তু আর্জেন্টিনার জার্সিতে তাঁকে আবার দেখতে পাওয়ার সম্ভাবনায় শঙ্কার মেঘ এনে দিয়েছে একটা ফোনকল। সেপ্টেম্বরে গুয়াতেমালা ও কলম্বিয়ার সঙ্গে প্রীতি ম্যাচ দুটির দল ঘোষণা হয়েছে কিছুদিন আগে। সে সময় আর্জেন্টিনার অস্থায়ী কোচ লিওনেল স্কালোনিকে ফোন করে মেসি জানিয়ে দিয়েছেন, ২০১৮ সালে আর জাতীয় দলে খেলছেন না। কখন ফিরবেন, নিশ্চিত নয়। ফলে আপাতত তাঁকে যেন বিবেচনা না করা হয়।

আপনার মতামত দিন