নির্ধারিত দামেও পশুর চামড়া কিনতে রাজি হচ্ছেন না ট্যানারি মালিকরা

নির্ধারিত দামেও পশুর চামড়া কিনতে রাজি হচ্ছেন না ট্যানারি মালিকরা। এতে বিপাকে পড়েছেন মৌসুমী চামড়া ব্যবসায়ীরা। লাভের আশায় চামড়া কিনে বড় লোকসানের আশঙ্কায় ভুগছেন তারা।এবার ঢাকায় লবণযুক্ত প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৫-৫০ টাকা আর ঢাকার বাইরে ৩৫-৪০ টাকা। এ ছাড়া সারাদেশে খাসির চামড়া ১৮-২০ টাকা এবং বকরির চামড়া ১৩-১৫ টাকা।

তবে মৌসুমি ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, পশুর চামড়া কিনে বিপদে পড়েছেন তারা। বাড়ি বাড়ি ঘুরে কেনা কুরবানির চামড়া ন্যায্য মূল্যে আড়তে বিক্রি করতে পারছেন না। সরকার নির্ধারিত দামেও চামড়া কিনতে চাইছেন না আড়তদার ও ট্যানারি মালিকরা।

ক্ষুদ্র চামড়া ব্যবসায়ী ওসমান মোল্লা জানান, আমরা চামড়া কেনার আগে ট্যানারি মালিকদের সঙ্গে আলোচনা করে প্রতি ফিট চামড়া ৪০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করে নেই। সেই অনুযায়ী আমরা বিভিন্ন এলাকা থেকে চামড়া ক্রয় করে তা বিক্রির জন্য সাভার চামড়া শিল্পনগরীতে নিয়ে গিয়েছি। কিন্তু এখন ট্যানারি মালিকদের সে কথাও রাখছে না। আন্তর্জাতিক বাজারে চামড়া বিক্রি হচ্ছে না জানিয়ে তারা আগের নির্ধারিত মূল্য দিয়ে কোনো চামড়া ক্রয় করবে না বলে পরিষ্কার বলে দিচ্ছে।

আপনার মতামত দিন