‘ঈশ্বর ভারতীয় ক্রিকেটকে রক্ষা করুন’

আইপিএলে দৃশ্যটি বেশ পরিচিত। প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজির ডাগআউটে সাবেক ভারতীয় ক্রিকেট তারকাদের দেখা যায় বিভিন্ন ভূমিকায়। কেউ মেন্টর, আবার কেউ কোচিং কিংবা সাংগঠনিক দায়িত্বে। বছরের বাকি সময় তাদের বেশির ভাগই কাজ করেন ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) বেতনভুক্ত হিসেবে। যেমন ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান রাহুল দ্রাবিড়ের কথাই ধরুন, দেশের জাতীয় ক্রিকেট একাডেমি (এনসিএ) প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। এর পাশাপাশি তিনি ইন্ডিয়া সিমেন্টস গ্রুপের সহসভাপতি—এ প্রতিষ্ঠানটি আবার আইপিএল দল চেন্নাই সুপার কিংসের কর্ণধার। দ্রাবিড়ের এভাবে একাধিক পদে আসীন থাকাকে ‘স্বার্থের সংঘাত’ হিসেবেই দেখছে বিসিসিআই। আর এতেই চটেছেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক অনুমোদিত বিসিসিআইয়ের নতুন নীতিমালা মোতাবেক একজন ব্যক্তি একই সময়ে একটির বেশি পদে থাকতে পারবেন না। বিচারপতি ডিকে জৈনের আদেশে এ সিদ্ধান্ত কার্যকরও হয়েছে। এর আগে শচীন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলি ও ভিভিএস লক্ষ্মণকে এ ব্যাপারে নোটিশ দিয়েছিল বিসিসিআই। আইপিএল দলের সঙ্গে থাকা ছাড়াও বিসিসিআইয়ে ক্রিকেট পরামর্শক কমিটিতে ছিলেন সাবেক এ তিন ক্রিকেটার। পরে ওই নোটিশের জন্য কমিটিই ভেঙে যায়। তবে সৌরভ গাঙ্গুলির এ নিয়ে এখন আর কোনো দুঃখ নেই। দ্রাবিড়ের মতো নিপাট ভদ্রলোককে এই নোটিশ পাঠানোতেই খেপেছেন ভারতের সাবেক এ অধিনায়ক।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*