ডিআইজি প্রিজন্সের বিরুদ্ধ অপপ্রচারের অভিযোগ

নিউজ বিডিডট নেট :  কারা উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি প্রিজন্স) মো. বজলুর রশিদকে নিয়ে একটি মহল ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছেন। তিনি যেখানে যান সেখানেই সাফল্যের কীর্তিগাঁথা রচিত হয়। তার হাতের ছোঁয়ায় ও নানামুখী কর্মকান্ডের বন্দীরা পেয়েছেন আলোর পথের ঠিকানা। এসবের স্বীকৃতিও তিনি পেয়েছেন বিভিন্ন স্বর্ণপদক ও সম্মাননা প্রাপ্তির মধ্যে দিয়ে। বজলুর রশিদের এইসব সাফল্যকে খাটো করতে কারাভ্যন্তরের একটি মহল ষড়যন্ত্র করে তাকে হেনাস্থার পথ বেছে নিয়েছেন।

ডিআইজি প্রিজন বজলুর রশিদ বলেন, এককভাবে বদলি করার কোনো ক্ষমতা আমার নেই। এছাড়াও নিয়োগ দেওয়া এবং কোন নিয়োগ কমিটির সদস্য আমি না। কারা অধিদপ্তরের ডিআইজি প্রিজন হিসেবে প্রায় ৩ বছর কর্মরত আছি। তাই আমার খ্যাতি নষ্ট করে ব্যক্তি স্বার্থে অন্যকে প্রতিষ্ঠা করার উদ্দেশ্যে মিথ্যা খবর ছড়ানো হচ্ছে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বি.এস.এস. (অনার্স), এম.এস.এস. সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে পড়ালেখা শেষ করে ১৯৯৩ সালের ১৬ আগস্ট সরাসরি জেল সুপার পদে চাকরিতে যোগদান করেন বজলুর রশিদ। এরপর তিনি জেল সুপার হিসেবে বরগুনা, সিরাজগঞ্জ, কুষ্টিয়া, কক্সবাজার, খাগড়াছড়ি এবং সিনিয়র জেল সুপার হিসেবে চট্টগ্রাম, কুমিল্লা ও যশোর কারাগারে চাকরি করেন।

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*