গড়ে উঠেছে সৌন্দর্য্যের রাণী বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন

নিউজ বিডিডট :  বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত পৃথিবীর সর্ববৃহৎ অখন্ড বনভূমি ম্যানগ্রোভ সুন্দরবন। এ বনের বৈচিত্র আর প্রাণীকূল প্রাকৃতিক বিস্ময়াবলীর অন্যতম। এ বনের অন্যতম আকর্ষণ মায়াবী চিত্রল হরিণ। পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় পূর্বের তুলনায় বর্তমানে হরিণের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রশাসনের কঠোর নজরদারির কারণে চোরা শিকারীরা হরিণ শিকার করতে না পারায় অভয়ারাণ্য এলাকা বৃদ্ধি করায় হরিণের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে দাবি করছে বন বিভাগ।

সুন্দরবন বিভাগের তথ্য মতে ১৮২৮ সালে তৎকালীন বৃটিশ সরকার সুন্দরবনের স্বত্তাধিকার অর্জন করেন। এলটি হজেয ১৮২৯ সালে প্রথম জরিপ পরিচালনা করেন। ১৮৭৮ সালে সুন্দরবনকে রিজার্ভ ফরেস্ট বা সংরক্ষিত অরণ্য হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। ১৮৭৯ সালে সুন্দরবনের দায়-দায়িত্ব বনবিভাগের উপর ন্যাস্ত হয়। ১৮৮৪ সালে সুন্দরবন প্রথম বিভাগীয় বন কর্মকর্তা হিসাবে এম,ইউ গ্রীন দায়িত্ব পালন করেন তখন সুন্দরবনকে ৭৫টি কম্পার্টমেন্টে ভাগ করা হয়। ১৯৪৭ সালে ভারত ভাগের সময় ৫৫টি কম্পার্টমেন্ট বাংলাদেশে পড়েছে

Facebooktwitterredditpinterestlinkedinmail

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*